আরও নিষেধাজ্ঞা আসবে কি না জানা নেই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

admin

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের আরও নিষেধাজ্ঞা আসবে কি না জানা নেই। তবে আলোচনা থেমে নেই।

বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

নিষেধাজ্ঞাকে অপ্রাসঙ্গিক উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘উত্তেজনা সৃষ্টির জন্যই এসব করা হচ্ছে। বাংলাদেশের সাফল্য আর ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে অনেকে তাদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে। আমাদের ক্ষতি করার চেষ্টা করছে।’

এক বছরের মাথায় শ্রীলঙ্কা অভাবনীয় সাফল্য পেয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কিছু দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিয়েছিল দেশটি। এতে করে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে পেরেছে। ইচ্ছা থাকলেই উপায় হয়।’

তবে শ্রীলঙ্কার ক্ষেত্রে চীনবিদ্বেষীরা অপপ্রচার চালিয়েছিল মন্তব্য করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ চীনের লেজুড় হয়নি। চীনকে ঠেকাতে উপদেশ, হুকুম, ভয় দেখিয়ে মোড়লরা সুবিধা করতে পারবে না। উন্নয়নশীল দেশগুলোকে অর্থকড়ি দিতে হবে।’ এ ছাড়া মানবাধিকারকর্মী আদিলুরের জামিন বিদেশি চাপে হয়নি উল্লেখ করে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘মিথ্যা তথ্যের কারণে আদিলুরের সাজা হয়েছে। তিনি ১০ বছর আয়-ব্যয়ের কোনো হিসাব দেননি। শাপলা চত্বরের ঘটনায় আড়াই হাজারের নাম দিলেও তিনি নিজেই ৬৩ জনের মৃত্যুর কথা বলেছেন। সেটারও কোনো প্রমাণ দিতে পারেননি। তাহলে ঢাকার ম্যানহোলে আড়াই হাজার লাশ কোথায়? মিথ্যাচার ও বানোয়াট খবর প্রচার করেছিল তারা। মক্কার ইমামরাও কখনো এ ধরনের বিক্ষোভ করেননি।’

এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সংঘাতমুক্ত নির্বাচন হবে কি না এর গ্যারান্টি দিতে পারবে না সরকার। রাজনৈতিক দলগুলোর সদিচ্ছার ওপর এটা নির্ভর করবে। তবে সংঘাতমুক্ত নির্বাচন করার বিষয়ে সরকার আন্তরিক।’

ভারতের ভিসা ছাড়াই বাংলাদেশিরা যেতে পারবে এমন প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। ভারত এটা পরীক্ষা-নিরীক্ষার কথা বলেছে।

আব্দুল মোমেন

প্রাক-নির্বাচনী পর্যবেক্ষক দলের সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের সব প্রস্তুতি জানানো হয়েছে। তারা সন্তুষ্ট হয়েছে বলেই মনে হয়েছে। পর্যবেক্ষক আসতে চাইলে ভালো, না আসলেও ক্ষতি নেই।’

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভানের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক মাঝপথে শেষ হয়ে যায়- একটি পত্রিকার এমন সংবাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বৈঠক বাতিল হয়নি। এই সাংবাদিক মিথ্যার স্বর্গে বসবাস করছেন।’

ইউরোপীয় কমিশনের উদ্যোগে গ্লোবাল গেটওয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আগামী ২৪ অক্টোবর ব্রাসেলস যাচ্ছেন বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এই প্রবন্ধটি শেয়ার করুন
2টি মন্তব্য